তামিম ইকবাল যখন বাচ্চা ছিলো

তামিম আমশরাফিকে জিজ্ঞাসা করলেন ভাই আপনে আমাকে কবে প্রথম দেখছিলেন মাশরাফি উত্তর দিলে তুরে আমি দেখছিলাম তুমি তখন একদম বাচ্চা চিলি আমি হাফ পান্ট পড়া ছিলি । এখন যেমন তর বাচ্চার আর আমার বাচ্চার আছে। তুরে নিয়ে আমার অনেক মজার কাহিনি আসে । তুর সাথে আমার সব থেকে বেশি দি মত হইয়ে থাকে এখন বল আমি কি করবো আর কারোও সাথে তো আমাম্র এমন হয় না শুধু তর সাথেই আমাম্র এমন হয় কান তুই বল আমাকে এনন=বগ বুজ্যায় দে বেপারটা আমাকে ।

Source: google.com

তুই যখন ছোট ছিলি তুমি গাড়ি নিয়ে গেলতেছিলি সেই তামিম তুই আজকে বাংলাদেশ দলের ওপেনার ভাপ্তে পারছ সবি কপাল আমাদের জিবনে খতখন কি হয় কেও জানে না । সেটা তুই ও জানিস না আমিও জানি না । তুই ই বল আমি ঠিক বলতেছে ছি কিনা তামিম বলেম বলে ভাই আপনে যা বলেন মুটামুতি সবি ঠিক আপনার কাছে জিন আছে মনে হয় ।

ভাই বলেন তো আপনে কিভাবে এই কাজ করে করে থাকেন সব সময় মাশরাফি বলে আমি নিজেও জানি না আল্লাহ সব জানে আমি শুধু এটাই করি সেতা আমাম্র মনে চায় অন্নকেও আমাকে কিছু করতে বললে আমি সেটা করি না কারন আমাম্র মনে সেটাচায় সেটাই আমি করে থাকি যার কারনে এমন হইয়্যে জায় মাজে মাজে।

আপনে তো একবার টয়লেটে লিখে রাখছিলেন যে মাই ছয় মাসে কোন রান করতে পারবু না ঠিক সেটাই হইছে আমাম্র সাথে আমি ছয় মাসে কোন রান করতে পারি নাই । এটা কিভাবে করলেন ভাই একটু যদি বলেন তখন মাশরাফি বলে আমি সেটা জানি না তুই কি জেন আমাম্র সাথে করছিলি তাই আমি মজা করে লিখছিলাম যে তুই ছয় মাশ রান করতে পারব[ই না দেখ সেটাই হইছে ।

Source: google.com

দেখ আজ তুই বাংলাদেশ দল এর ও কাপ্টাইন তুর মাদ্দমে সামে বাংলাদেশ বিশ্বকাপ খেল্বে এটাই সুতি এর মোদেয় কোন ভূল নাই । তুই যদি চেলে থাকুস । সবই আল্লাহ জানে। তুর ভাই আমাম্র বধু ছিল। নাফিস ইকবাল ও তো অনেক ভালো মানুষ ।তুর ভাই যে কি কস্ট করছে তুর জন্য সেটা আমি সারা কেও ভালো জানে না কারন আমি ওর সাথে সব সময় থাকতাম ও আমার সাথে সব সময় এক সাথে থাক্তু। ও না খেয়ে তুর জন্য টাকা জমায় রাখতু কারন তুই জাতে ভালো একটা ব্যাট দিয়ে খেলতে পারুছ ওর মনে কোন দিন ও কস্ট দিছ না ।

মাশরাফি তো এখন অনেক বড় নেতা সব দেশের মানুষ তাকে অনেক ভালো বাসে তামিম কেও সবাই অনেক ভালো বাসে। সাকিব আল হাসান ও অনেক ভালো মানুষ কত মানুকে কত ভাবে সাহাসস করতে তা বলে শেষ করা যাবে না তুরা তো অনেক ভালো ভালো কাজ করতেসুস সেটা করতে থাক জাতে আপম্রা মানুজের জন্য কিছু করতে পারি এইমহরতে । এছাড়া তো এখন আমাদের কিছু করার নাই কি বল ঠিক বললাম কিনা ?

Source: google.com

আমরা জানি না আমরা কে কত দিন বেচে থাকবু সবাই সবার জন্য দোয়া করি জাতে আমরা সবাই জেন ভালো কাজ করে বেচে থাকতে পারি পাঁচ অয়াক নামাজ পরে আমাদের উচিত সবার জন্য দোয়া করা । সব কিছু ঠিক হলে জেন আমরা সবাই আবাবার খেলায় ফিরতে পারি । আপনেরা তো সবাই জানাএন ভাই অনলাইনে কে যার কারনে আমামদের লাইভে আস্তে দেরি হইয়ে গেল সবাই আমামদের ক্ষমা করে দিয়ে । আমাদের মাপ করে দিয়েন।