সবচেয়ে বেশি তামিমের

২০১৫ বিশ্বকাপের পরে থেকে বাংলাদেশের ওয়ানডে জয়ে ব্যাটিংয়ে সবচেয়ে বেশি এবং বড় অবদান তামিম ইকবালের।এই সময়ে তামিম ৯ টা ওয়ানডে সেঞ্চুরি করেছে। ৮টি তে বাংলাদেশ জিতেছে।

এই সময়ে ৩৫ টা জয়ী এবং ২৮ টি পরাজিত ম্যাচে তামিম ছিল। ৩৫ জয়ের ম্যাচে তামিমের রান ২১৯২। গড় ৭৮.২৮ , স্ট্রাইকরেট ৮৫.৮২, সেঞ্চুরি ৮, হাফ সেঞ্চুরি ১২, ডাক ১ টা।

২৮ পরাজিত ম্যাচে তামিমের রান ৭২৬, গড় ২৫.৯২, স্ট্রাইকরেট ৬৭.৫৯, সেঞ্চুরি ১, হাফ সেঞ্চুরি ৫, ডাক ৩ টা।

গড়ের পার্থক্য প্রায় ৫২ রান।

সাকিব, মুশফিক, রিয়াদ কারো ক্ষেত্রেই জয় বা পরাজিত ম্যাচে গড় বা রানের এত বড় পার্থক্য নেই।
জয়ী ম্যাচে মুশফিকের রান ১৪৯১(৩৭ ইনিংস), সাকিবের রান ১১৩৯ (২৬ ইনিংস) , রিয়াদ ৯১৫ রান (৩০ ইনিংস)।

পরাজিত ম্যাচে মুশফিকের রান ১২১০( ৩০ ইনিংস) , সাকিব ৯৮৬ (২৫ ইনিংস), রিয়াদ ৬১৬ রান (৩১ ইনিংস)

আসলে এই সময়ে জয়ী ম্যাচে তামিমের মতো কেউ এতটা ইমপ্যাক্ট ফেলতে পারেনি। আবার তামিম খারাপ খেললে বাংলাদেশের হার বেশি হচ্ছে। সাকিব, মুশফিক জয় – পরাজয় ম্যাচে প্রায় একই রকম থাকে। পার্থক্য হয় মাহমুদুল্লাহ আর তামিমের বেশি। সবচেয়ে বেশি তামিমের। এতে একটা ব্যাপারই প্রমাণ হয় বাংলাদেশের ব্যাটিং কতটা তামিম নির্ভরশীল।